স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিএনপির বইমেলা শুরু

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিএনপির আয়োজনে শুরু হয়েছে দুইদিনের ‘মুক্তিযুদ্ধের বইমেলা ও চিত্র প্রদর্শনী’।

বুধবার সকাল ১১টায় ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের মিলনায়তন প্রাঙ্গণে বিএনপির স্বাধীনতা সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক খন্দকার মোশাররফ হোসেন জাতীয় পতাকা এবং স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর দলীয় পতাকা উত্তোলন করে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

বিএনপির একদল শিল্পীর পরিবেশনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতীয় ও দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়।

মেলায় বিশিষ্ট লেখকদের মুক্তিযুদ্ধ, রাজনীতি, গবেষণা, গল্প, কবিতা, উপন্যাস ও বিশ্বেষণধর্মী বই রয়েছে। এছাড়া জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ওপর আলোকচিত্র ও চিত্রকর্মও স্থান পেয়েছে। বইমেলা উপলক্ষে দুই দিনই সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মেলার উদ্বোধন করে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, “মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা জিয়াউর রহমান করেছেন- এটা সত্য ঘটনা, সত্য ইতিহাস। এটাকে অস্বীকার করার সুযোগ নেই।

অনুষ্ঠানের শুরুতে জিয়াউর রহমানসহ বীর ‍মুক্তিযোদ্ধার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়।

জাতীয়তাবাদী টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রকাশনায় ‘বস্ত্র ও পোশাকশিল্পের স্থপতি শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয় অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে অতিথিদের চিত্রশিল্পী হীরা সোবহান কয়েকটি চিত্রকর্ম উপহার দেন।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে বিএনপির ‘সাজসজ্জা, মুক্তিযুদ্ধের বইমেলা ও চিত্রপ্রদর্শনী কমিটি’র আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্সের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কল্যাণ পার্টির সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) কমিটির আহ্বায়ক আবদুস সালাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সভাপতি ও মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি নবী উল্লাহ নবী, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল উপস্থিত ছিলেন। বিডি নিউজের সৌজন্যে