পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) দেওয়া হয়েছে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা,প্রধানমন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সুন্নী জনতা

খুশির খবর পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ)এবার থেকে রাষ্ট্রিয়ভাবে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে পালিত হবে।

রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়া হয়েছে বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিবস ১২ রবিউল আওয়ালকে।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।
এতে বলা হয়েছে, পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবীর দিবসটিতে বাংলাদেশের সব সরকারি ও বেসরকারি ভবন ও অফিস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। এছাড়া বিদেশি কূটনৈতিক মিশন ও দূতাবাসগুলোতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে।

অবিলম্বে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিবস ১২ রবিউল আউয়াল মুসলমানদের কাছে এক পবিত্র দিন। এ দিনটি মুসলমানরা পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নাবী (সাঃ)রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুফতি মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরী সহ অনেক সুন্নী জামাতের আলেম ওলামা।

তাহেরি তার অফিসিয়ালি ফেইসবুক ভেরিফাই পেইজে লিখেন

রাষ্ট্রীয় মর্যাদা পেল পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী(সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম)।
এখন থেকে পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে সকল সরকারী বেসরকারি ভবনে উত্তোলিত হবে জাতীয় পতাকা।