বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে শায়িত হবেন সাংবাদিক মিজানুর রহমান

সাইদুর রহমান মিন্টু
বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের প্রখ্যাত সাংবাদিক মিজানুর রহমান খানের জানাজা শেষে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বাদ জোহর রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় প্রথমে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে, এরপর সাড়ে ১০টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এবং বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে আরেক দফা জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। সেখান থেকে দুপুর ১২টায় তার মরদেহ কারওয়ান বাজারে প্রথম আলো কার্যালয়ের সামনে আনা হবে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য। পরে বাদ জোহর তাকে দাফন করা হবে।

গত ২৭ নভেম্বর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন মিজানুর রহমান খান। প্রথম একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হলে গত ১০ ডিসেম্বর তাকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে রেখে চিকিৎসা করানো হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে শনিবার (১০ জানুয়ারি) বিকালে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। সোমবার (১১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত্যুর সময় তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণাগ্রাহী রেখে গেছেন। মিজানুর রহমান খানের ভাই সিদ্দিকুর রহমান খান ও মসিউর রহমান খান সাংবাদিকতা পেশায় রয়েছেন। ছোট ভাই মসিউর রহমান খান ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাধারণ সম্পাদক।

মিজানুর রহমান খান বরিশালের বিএম কলেজ থেকে হিসাববিজ্ঞানে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর করেছেন। তিনি সংবিধান ও আইন নিয়ে লেখালেখি করেন। তিনি বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেছেন। সবশেষ জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক পদে ছিলেন।

তার উল্লেখযোগ্য বই সংবিধান ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার বিতর্ক, ১৯৭১: আমেরিকার গোপন দলিল।

googel
বিজ্ঞাপন