✍ ডেস্ক রিপোর্ট

বঙ্গবন্ধু রেলসেতু প্রকল্প ২০২৫ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

আজ বুধবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম গোলচত্বর এলাকায় বঙ্গবন্ধু রেলসেতু নির্মাণের ভিত্তিফলক স্থাপনের স্থান পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন ,আগামী ২৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। আনুষ্ঠানিকভাবে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর থেকে এটির বাস্তবায়ন কাজ শুরু হবে বলে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন।

রেলমন্ত্রী জানান, প্রকল্পটি দুটি ভাগে বাস্তবায়ন হবে। একটি পশ্চিমাঞ্চল অর্থাৎ সিরাজগঞ্জ অঞ্চল এবং অপরটি টাঙ্গাইল অঞ্চলে। দুটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। ২০২৫ সালের মধ্যে এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

নতুন রেলসেতু নির্মাণ হলে দুটো ট্রেন একসঙ্গে যেতে পারবে এবং ১০০ কিলোমিটার বেড়ে সেতুটি অতিক্রম করতে পারবে বলে জানান রেলমন্ত্রী।

তিনি বলেন, বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সেতুর সঙ্গে যেভাবে ট্রেন চলাচল করছে, তাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে ভারসাম্যপূর্ণ রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন তার সঙ্গে কাজ করছে না। এখান দিয়ে মাত্র ২০ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চলাচল করছে। মাত্র ৪৪টি ট্রেন পারাপার করতে পারলেও কনটেইনার ও মালামাল পরিবহন করতে পারছি না। এসব কারণে বঙ্গবন্ধু সেতুর ৩০০ মিটার উজানে ডেডিকেটেড ডাবল লেনের রেলসেতু নির্মাণ করা হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের পরীক্ষিত বন্ধু জাপানের অর্থায়নে এ প্রকল্পটি জাইকা বাস্তবায়ন করছে। টেন্ডারসহ সমস্ত প্রক্রিয়া আমরা সম্পন্ন করেছি। প্রধানমন্ত্রী ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে এর কাজ শুরু করা হবে।