সাইদুর রহমান মিন্টু
বিজ্ঞাপন

কুমিল্লার হোমনায় ছাত্রলীগের হামলায় আওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের শ্রীপুর বাজারে শুক্রবার বিকেলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পূর্ব নির্ধারিত মতবিনিময় সভা হওয়ার কথা। একই স্থানে পাল্টা সভা ডাকেন উপজেলা ছাত্রলীগ। উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল মজিদ পূর্ব নির্ধারিত ওই সভাস্থলে গেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাঁর উপর হামলার চেষ্টা করে। উভয় গ্রুপের মধ্যে ইট পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হলে ইটের আঘাতে সভাপতি আব্দুল মজিদ আহত হন বলে দলীয় সূত্র জানায়।
জয়পুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুস সাত্তার জানান, ১৫ দিন আগে আমরা মতবিনিময় সভার তারিখ ও স্থান নির্ধারণ করেছি। হঠাৎ করে ছাত্রলীগের ছেলেরা একই স্থানে সভা করার চেষ্টা করে।

উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ বলেন, ইটের আঘাতে আমার পা থেতলে গেছে। বাড়ীতেই চিকিৎসা নিচ্ছি। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, হামলায় ছাত্রলীগের কোন দোষ নেই। দোষ হলো আমাদের, আমরা কেনো ছাত্রনেতা বানানোর আগে তাদের অতীত এবং তাদের পরিবারের ইতিহাস যাচাই করিনা! যদি যাচাই করে নেতা বানানো হতো তাইলে আজ আওয়ামীলীগের সভায় ছাত্রলীগ পাল্টা সভা করার নামে হামলা করতো না। এরা ছাত্রলীগ না, সন্ত্রাসী ও চাদাঁবাজি করার জন্য ছাত্রলীগ সেজেঁছে।

হামলার কথা অস্বীকার করে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল সরকার বলেন, জয়পুর ইউনিয়নে ছাত্রলীগের সভা হওয়ার কথা ছিলো। ১৪৪ ধারা জারির কারণে আমরা সভা করতে পারিনি।

হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আখন্দ বলেন, একই স্থানে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ সভা ডাকায় দুইপক্ষই মিছিল নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলো। বেশি কিছু হয়নি, মজিদ সাহেব আমার সামনেই ছিলো। পায়ে ইটের আঘাত লেগেছে। আর কোথাও ১৪৪ ধারা জারি করা হয়নি।

googel
বিজ্ঞাপন