কুমিল্লা জেলা, বুড়িচং টু কালিকাপুর সড়কে যাত্রী ও চালকদের মন খারাপের যাত্রা

✍ আক্কাস আল মাহমুদ হৃদয়

দীর্ঘদিন বেহাল কুমিল্লা জেলার বুড়িচং টু কালিকাপুর(থানা রোড)। তাই যাত্রী ও পরিবহন চালকরা প্রতিনিয়ত মন খারাপের যাত্রা করছেন। বৃষ্টি ও বড় বড় ট্রাক চলাচলে সড়কের গর্তগুলো বড় হচ্ছে। গর্তে পানি জমে তা পুকুরে রূপ নিয়েছে। গর্তে গাড়ি আটকে প্রায় সড়ক বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এতে ভোগান্তিতে বুড়িচং উপজেলার যাত্রীরা এবং স্কুল কলেজ ছাত্র ছাত্রীরা। দ্রুত সংস্কার না করা হলে আবার সড়কটি অচল হয়ে পড়তে পারে।

[ecwid widgets=”productbrowser search categories” default_category_id=”0″ default_product_id=”0″ minicart_layout=”MiniAttachToProductBrowser”]

যাত্রী ও গাড়ীর চালকরা জানান, প্রায় ৮ বছর ধরে বুড়িচংয়ে থানা সড়কটি বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। ভাঙা সড়কে গাড়ি চালাতে গিয়ে সময় নষ্ট, যানজট আর গাড়ি বিকল হওয়ায় ক্ষুব্ধ চালাকরা। ভোগান্তিতে বিরক্ত যাত্রীরা। এ সড়কে অধিকাংশই ভাঙা। এসব স্থানে গাড়ি চলে হেলেদুলে। ধীর গতিতে গাড়ি চলায় প্রায়ই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। কোথাও কোথাও গর্তে পড়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়ি আটকে পড়ছে। এ সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে বুড়িচং এরশাদ ডিগ্রি কলেজ,আনন্দ পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়,কালি নারায়ণ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কালিকাপুর আব্দুল মতিন খসরু ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা। কিছু দিন পূর্বে এ সড়কে কয়েকটি গর্তের স্থানে ইট দিলেও তা উল্টে যাওয়ার কারণে আরো ঝুঁকি বেড়ে গেছে। এখানেই বেশি যানজটের সৃষ্টি হয়। ৩০ মিনিটের পথ পাড়ি দিতে সময় লাগছে ২ ঘণ্টা। অন্য কোনো বিকল্প রাস্তাও নাই যে যাত্রী ও চালক চলাচল করবে। এতে করে দ্বিগুণ ভাড়া পরিশোধ করতে হচ্ছে যাত্রীদের। চালক ও যাত্রী উভয়ের বাড়তি সময় ব্যয় হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়,কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে গ্রামীণ সড়কের পাশাপাশি কুমিল্লা-বুড়িচং-টু কালিকাপুর(থানা সড়ক) সড়কটি দীর্ঘ দিন(১০ বছর) সংস্কারের অভাবে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। কোথাও কোথাও বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে এমন অবস্থা হয়েছে যে একটু বৃষ্টি হলেই গর্তগুলো পুুকুরে পরিণত হয়। এতে যানজটের সৃষ্টি হওয়ার পাশাপাশি যানবাহন ও পথচারী চলাচলে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ সড়কটির পুরোটাই কারপেটিং, পিচ ও কংক্রিট উঠে গিয়ে খানাখন্দে পরিণত হয়েছে।

এ সড়কে চলাচলকারীরা স্থানীয় এমপি, প্রশাসন ও চেয়ারম্যানের দৃষ্টি আহ্বান জানিয়ে দ্রুত সংস্কারের দাবি জানান।

এএনবি২৪.কম /শারমিন