হোয়াইট হাউজের অনুষ্ঠান থেকে দ্রুত ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস- ড. ফাউসি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

হোয়াইট হাউজের তীব্র সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইরাস বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউসি, গত মাসে একটি ‘গ্যাদারিং’ বা অনুষ্ঠান করে হোয়াইট হাউজ। তিনি মনে করেন, সেখান থেকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি বলেছেন, হোয়াইট হাউজ করোনা ভাইরাসের ‘সুপারস্প্রেডার’ বা দ্রুতগতিতে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে দেয়ার ওই অনুষ্ঠান আয়োজন করেছিল। হোয়াইট হাউজে করোনা ভাইরাস বিষয়ক টাস্কফোর্সের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ড. অ্যান্থনি ফাউসি। তিনি বলেছেন, সুপ্রিম কোর্টের প্রয়াত বিচারপতি রুথ ব্যাডেন গিন্সবার্গের স্থলাভিষিক্ত হিসেবে নতুন মনোনীতের নাম প্রকাশ করতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ওই অনুষ্ঠান আয়োজন করেছিলেন, তা ছিল আসলে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে দেয়ার ‘সুপারস্প্রেডার ইভেন্ট’। ওই অনুষ্ঠানের পর হোয়াইট হাউসের সহযোগী ও অন্য আরো কয়েক ডজন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।

ওদিকে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প নিজে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে তাকে পাবলিক ইভেন্টে অংশগ্রহণের ক্লিয়ান্সে দিয়েছেন তার চিকিৎসকরা। করোনা আক্রান্ত হয়ে তিন রাত হাসপাতালে কাটানোর পর গত সোমবার হোয়াইট হাউজে ফিরেছেন ট্রাম্প। শুক্রবার রাতে ফক্স নিউজ এক সাক্ষাতকারে তার কাছে জানতে চেয়েছিল- তার লক্ষণগুলোর অভিজ্ঞতা সম্পর্কে। জবাবে ট্রাম্প বলেছেন, তিনি শক্তিশালী ছিলেন না। তবে শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা ছিল না তার। উল্লেখ্য, শনিবার হোয়াইট হাউজের একটি ইভেন্টে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত থাকার কথা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের।
ওদিকে শুক্রবার ড. অ্যান্থনি ফাউসিকে সিবিএস নিউজ প্রশ্ন করে, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে পূর্ব সতর্কতা হিসেবে হোয়াইট হাউজে মাস্ক পরতে অনীহা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরিবর্তে নিয়মিত পরীক্ষার ওপর নির্ভর করা সম্পর্কে তিনি কি ভাবেন। জবাবে ফাউসি বলেন, ডাটাই তো এক্ষেত্রে কথা বলে। হোয়াইট হাউজে হয়েছে সুপারস্প্রেডার ইভেন্ট। সেই ইভেন্টে পরিস্থিতিটা এমন ছিল যে, লোকজন গাদাগাদি করে অবস্থান করছিলেন এবং তারা মাস্কই পরেন নি। তিনি আরো উল্লেখ করেন বিশেষজ্ঞরা গত ৬টি মাস ধরে মাস্ক পরার সুপারিশ জানিয়ে আসছেন। করোনা ভাইরাস নিরাময় নিয়ে যে আলোচনা তার নিন্দা জানিয়ে আসছেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা নিরাময়কে ইংরেজিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘কিউর’ হিসেবে আখ্যায়িত করে যাচ্ছেন। তিনি সম্প্রতি হাসপাতালে অবস্থানকালে এই চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।
গত ২৬ শে সেপ্টেম্বর হোয়াইট হাউজে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে এমি কোনি ব্যারেটকে মনোনয়ন দেয়া নিয়ে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানকে স্থানীয়ভাবে করোনা সংক্রমণের মূল হিসেবে ভাবা হচ্ছে। কারণ, ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া অনেকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এখন ওয়াশিংটন ডিসিতে কোভিড-১৯ এর কারণে বড় সমাবেশ নিষিদ্ধ। কিন্তু হোয়াইট হাউজের মতো ফেডারেল প্রপার্টি এক্ষেত্রে আলাদা।