মানবপাচারে জড়িতদের গ্রেপ্তারে জারি হচ্ছে ইন্টারপোলের রেড অ্যালার্ট

সাইদুর রহমান মিন্টু
বিজ্ঞাপন

✍ ডেস্ক রিপোর্ট

মানবপাচারের সঙ্গে জড়িত বিদেশে পলাতক দালালদের গ্রেপ্তারে শিগগিরই ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিশ জারি করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।

রবিবার দুপুরে সিআইডি সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

লিবিয়ার মিজদাহ শহরে গুলি করে ২৬ বাংলাদেশি হত্যার পর মানবপাচারে জড়িতদের গ্রেপ্তারে এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে সিআইডি। ওই আক্রমণে বেঁচে যাওয়া ১২ জনের মধ্যে ৯ জনকে ইতোমধ্যে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। বাকি তিনজনকে আনা সম্ভব হয়নি।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বাংলাদেশ ও লিবিয়ার যৌথ উদ্যোগে বোরাক এয়ারের বিশেষ ফ্লাইটে এ ৯ জন ফিরে আসেন। যাদেরকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে তারা হলেন, ফিরোজ বেপারী, জানু মিয়া, ওমর শেখ, সজল মিয়া, তারিকুল ইসলাম, বকুল হোসেন, মোহাম্মদ আলী, সোহাগ আহমেদ এবং সাইদুল ইসলাম। অন্যদিকে যাদেরকে আনা সম্ভব হয়নি তারা হলেন, বাপ্পী দত্ত, সম্রাট খালাসী ও সাজিদ।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, চলতি বছরের ২৮ মে লিবিয়ার মিজদাহ শহরে মানব পাচারকারীদের গুলিতে ৩০ জন নিহত হন। এরমধ্যে ২৬ জন ছিলেন বাংলাদেশি। ওই আক্রমণে আহত হন আরও ১২ জন বাংলাদেশি। এ ঘটনায় ২৬টি মামলা হয়। যারমধ্যে সিআইডি ১৫ টি মামলার তদন্ত করছে। এসব মামলার ৪৪ আসামিকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ডিআইজি আবদুল্লাহেল বাকী বলেন, মামলার তদন্তকালে অনেক আসামিই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বিদেশে অবস্থানরত দালাল ও মূল আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য অচিরেই ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিশ জারি করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, লিবিয়া থেকে আসা নয়জন ভিকটিমকে সিআইডি সদর দপ্তরে নিয়ে আসে। মামলার তদন্তের স্বার্থে ঘটনাস্থলের বর্ণনা, ঘটনার সার্বিক বিবরণ ও প্রাসঙ্গিক সাক্ষ্যের জন্যে ভিকটিমদের বক্তব্য নেয়া হয়। অচিরেই জবানবন্দি নেয়ার জন্য ভিকটিমদের আদালতে উপস্থাপন করা হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা বলেন, আগামী সপ্তাহের মধ্যে বিদেশে অবস্থারনত ৮ থেকে ১০ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিশ জারি করা হবে।

googel
বিজ্ঞাপন