ভাতিজিকে ধর্ষণ, আওয়ামী লীগ সভাপতি গ্রেপ্তার

সাইদুর রহমান মিন্টু
বিজ্ঞাপন

ফেনীর সোনাগাজীতে ৭ম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে (১২) ধর্ষণের অভিযোগে তমিজ উদ্দিন নয়ন (৫০) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ভাদাদিয়া গ্রামের চুনি মাঝি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তমিজ উদ্দিন নয়ন ওই বাড়ির সৈয়দ আহম্মদের ছেলে ও মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। আসামী নয়ন সম্পর্কে ওই স্কুল ছাত্রীর জেঠা।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রহিম জানান, চুনি মাঝি বাড়ির তমিজ উদ্দিন নয়ন তার বাড়ির সামনে একটি ফার্নিচার দোকানের মালিক। গত ১লা অক্টোবর সকালে ওই দোকানের কর্মচারীর (তার চাচাতো ভাই) স্কুল পড়ুয়া মেয়ে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় তমিজ উদ্দিন নয়ন জোর করে তার দোকানে নিয়ে ওই ছাত্রীকে (ভাতিজি) ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর ঘটনাটি কাউকে জানালে ছাত্রী ও তার বাবা হত্যার হুমকি দেয় নয়ন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ আরো জানায়, স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের বিষয়টি নয়নের স্ত্রী স্বচক্ষে দেখে ফেললে তার মুখ বন্ধ করার জন্য নয়ন তাকে মারধরও করেন। একপর্যায়ে স্বামী-স্ত্রীর কথাকাটির বিষয়টি স্থানীয়রা জেনে গেলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ছাত্র কে তার বাবা-মা’র বিষয়টি জানতে চাইলে ছাত্রীটি তাদের কাছে ঘটনার বর্ননা দেয়। এ ব্যপারে ওই ছাত্রীর মা বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার রাতেই তমিজ উদ্দিন নয়নকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান, মামলার পর পুলিশ দ্রুত অভিযান চালিয়ে আসামী নয়নকে মধ্যরাতে গ্রেপ্তার করে। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

googel
বিজ্ঞাপন