এবার ভারতে পাবজি-সহ ১১৮ চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ

✍ আন্তর্জাতিক ডেস্ক,

চীনের সঙ্গে লাদাখে প্রথম সংঘাতের পর ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পরপর বেইজিংয়ের উপর ‘ডিজিটাল স্ট্রাইক’ চালিয়েছিল ভারত সরকার। প্রথমে ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার ফরমান জারি করার পর, পরে আরও ৪৭ টি চিনা অ্যাপকে ব্যান করে ভারত।

জানা যায়, ওই ৪৭টি অ্যাপ আগে থেকে ভারতে নিষিদ্ধ করা ৫৯টি চিনা অ্যাপের ক্লোন এবং লাইট ভার্সন। এরপরেই জল্পনা তৈরি হয়েছিল এরপর কি নিষিদ্ধ অ্যাপের তালিকায় আসতে চলেছে জনপ্রিয় গেম পাবজি?

সেই জল্পনা অবশেষে দূর হল, যখন ভারতের সঙ্গে ফের চীনের সংঘাত নতুন করে চরম আকার ধারণ করেছে। এবার পাবজি-সহ মোট ১১৮টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করল ভারত সরকার।

আগে যে শতাধিক অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল, তার কারণ হিসেবে জাতীয় নিরাপত্তার কথা তুলে ধরা হয়েছিল। এবারো পাবজিসহ যে বিপুল পরিমাণ অ্যাপকে নিষিদ্ধে ঘোষণা করা হল, সেই ক্ষেত্রেও সেই জাতীয় নিরাপত্তার কথাই তুলে ধরা হয়েছে। দেশটির তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এদিন ওই নির্দেশিকা জারি করে।

এর আগে টিকটক, ইউসি ব্রাউজার, শেয়ার-ইট, উই-চ্যাট, ক্যামস্ক্যানার-সহ ৫৯টি চীনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছিল ভারত। দেশটির দাবি, ভারতের সুরক্ষা, সংহতি, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা এবং এ দেশের সাধারণ মানুষের তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, যে সব অ্যাপ আগে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, সেই অ্যাপ-নির্মাতাদের তালিকায় ছিল টেনসেন্ট, আলিবাবা, শাওমির মতো একাধিক চীনা সংস্থা।