তিউনিসিয়ায় ধর্ম অবমাননায় ব্লগারের ৬ মাসের জেল

সাইদুর রহমান মিন্টু
বিজ্ঞাপন

তিউনিসিয়ায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইসলাম অবমাননা করে পোস্ট দেওয়ায় এক ব্লগারকে ৬ মাসের জেল দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও দুই হাজার দিনার জরিমানা করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার তিউনিসিয়ার একটি আদালত ২৭ বছর বয়সী ব্লগার আমিনা আল শারকি সম্পর্কে এ শাস্তির ঘোষণা দেয়। গত মে মাসের দুই তারিখ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাঁর পোস্ট প্রকাশ হলে অনেকে তা ধর্মীয় উস্কানি ও অবমাননা বলে অবিহিত করে। আবার অনেকে তাঁর পক্ষে মতামত প্রকাশ করে।

তিউনিসিয়ার কোর্ট অফ ফার্স্ট ইনস্ট্যান্সের মিডিয়া ইউনিটের প্রধান মুহসেন আল দালি মিডিয়াকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, ধর্ম, বর্ণ ও জনগোষ্ঠীর মধ্যে ঘৃণা ও উসকানি তৈরির জন্য আমিনা আল শারকির বিরুদ্ধে ছয় মাসের জেলের শাস্তি ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় দুই হাজার দিনার (প্রায় ৬৫০ ইউরো) জরিমানা করা হয়।

আমিনার আইনজীবী ইনাস তারাবলিসি বলেন, পবিত্র বস্তু ও উত্তম চরিত্রকে অবমাননা করে সহিংসতাকে উৎসাহিত করে একটি লেখা ইন্টারনেটে প্রচার করায় গত মে মাসের শুরুর দিকে তিউনিসিয়ার একটি আদালত তাঁর বিচারকার্য শুরু করে।

শারকির আইনজীবীর ভাষ্য মতে, আল শারকি তিউনিসিয়ান সংবিধানের ষষ্ঠ অনুচ্ছেদ মতে অভিযুক্ত। এতে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্র ধর্মের প্রতি যত্নবান হবে। মসজিদ ও উপাসনালয়ের নিরাপত্তার জন্য ধর্মীয় আবেগ-অনুভূতির চর্চা ও স্বাধীনতা রক্ষা করবে।’

এদিকে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তিউনিশিয়ার কর্তৃপক্ষকে আমিনা শারকির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে আহ্বান জানায়। নতুবা তা গণতন্ত্রের উন্নয়নের পথে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে ক্ষুণ্ন করবে।

উল্লেখ্য, গত মে মাসের দুই তারিখে আমিনা শারকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পবিত্র কোরআনের সুরাকে নকল করে ‘সুরা করোনা’ শিরোনামে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত একটি পোস্ট করে। তাতে করোনা মহামারিতে হাত ধোয়া ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা বলা হয়। তাঁর পোস্টটি ফ্রান্সে অবস্থানরত এক আলজেরিয়ান নাস্তিক শেয়ার করলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল বিতর্ক তৈরি করে।

সূত্র: লাইভ নিউজ

googel
বিজ্ঞাপন