মালদ্বীপে বাংলাদেশীদের সমস্যা সমাধানে সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করবে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

0
165
মালদ্বীপে বাংলাদেশীদের সমস্যা সমাধানে সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করবে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মালদ্বীপ প্রতিনিধি: শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর)মালদ্বীপে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী মালদ্বীপে তাঁর আবাসস্থল থেকে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন,  মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আমি একটি সফল দ্বিপাক্ষিক আলোচনা করেছি। অনথিভুক্ত বাংলাদেশী শ্রমিকদের বৈধ করার বিষয়টি সংলাপে প্রাধান্য পেয়েছে। মালদ্বীপে প্রবাসী বাংলাদেশীরা বর্তমানে যে সমস্যাগুলোর সম্মুখীন হচ্ছেন তার সমাধানে তাঁর সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

মালদ্বীপে বাংলাদেশী প্রবাসীরা তাদের কষ্টার্জিত অর্থ সরাসরি মালদ্বীপের মুদ্রায় যাতে দেশে পাঠাতে পারেন সে ব্যবস্থাও তিনি নেবেন, যাতে করে মালদ্বীপে বাংলাদেশী প্রবাসীদের লোকসানের মুখে না পড়তে হয়। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে এখানকার প্রবাসীরা যাতে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন সে ব্যবস্থা তাঁর সরকার করে দেবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  এখানকার বিভিন্ন দ্বীপের অভিবাসীরা যাতে বির্বিঘে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন সেজন্য প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংককে আমি বলবো এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য প্রয়োজনে এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংক মানি এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাটা করে দেবে যাতে ডলার কিনে আবার বাংলাদেশে পাঠানোতে যে লোকসানটা হয় সেটা যেন বন্ধ হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,  বাড়ি-ঘর বিক্রি করে দালালের হাতে টাকা দেওয়ার কোনও দরকার নেই। বরং প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে লোন নেওয়া যাবে। ক্ষেত্র বিশেষে এই লোন কোনও জামানত ছাড়া দেওয়া হয়। ধীরে ধীরে সেই ব্যাংকেই লোন শোধ করবেন। তারপরও মানুষের মাঝে একটা প্রবণতা আছে, কেউ এসে সোনার হরিণ ধরার সুযোগ দেখালো, সবাই সেই পথে দৌঁড়ালেন। তারপর বিপদে পড়েন। অনেক সময় মৃত্যু হয়। এ রকম বহু ঘটনা ঘটে যায়। এভাবে সোনার হরিণ ধরার পেছনে ছোটার কোনও দরকার নাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মালদ্বীপের সঙ্গে কানেকটিভির উন্নয়নে তাঁর সরকারের উদ্যোগ তুলে ধরেন, ৯৬ সালে সরকারের আসার পরই তাঁর সরকার বেসরকারি খাতকে উন্মুক্ত করে দেয় এবং বেসরকারি খাতে বিমান পরিচালনারও সুযোগ সৃষ্টি করে। যে কারণে আজকে একটি বেসরকারি খাতের বিমান মালদ্বীপে আসা শুরু করেছে। সরকারী বিমানে আমরা মালদ্বীপে যাতায়াতের একটা ব্যবস্থা করবো সেলক্ষ্য সরকারের  রয়েছে। এছাড়া ও পররাষ্ট্র ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীরা আপনাদের(মালদ্বীপে প্রবাসী বাংলাদেশী) সঙ্গে সমস্যা নিয়ে কথা বলেছেন। তাঁর সরকার সেই সকল সমস্যা সমাধানের ব্যাবস্থা গ্রহন করবেন।

উল্লেখ্য, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়ানোর লক্ষ্যে সংযোগ জোরদারে সম্মত হওয়ার প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ বিমান ভারতের চেন্নাই হয়ে মালদ্বীপের সাথে বিমান যোগাযোগ চালু করার বিষয়ে গতকাল দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় ঐক্যমত প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

প্রবাসী শিক্ষা উদ্যোক্তা আহমেদ মুত্তাকির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, মালদ্বীপে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান, মালদ্বীপ আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব দুলাল মাদবর। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন , দূতালয়ের প্রথম সচিব মোহাম্মদ সোহেল পারভেজ, সি.আই. পি. আলহাজ্ব মো: হোসেন রানা, ব্যবসায়ী মো দুলাল হোসেন, মাষ্টার শফিকুল ইসলাম প্রমুখ্য।

উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মালদ্বীপের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রবাসী বাংলাদেশীরা ইস্কান্ধার স্কুল অডিটোরিয়ামে, রাজধানী মালের চাঁদনী মাগুতে সমবেত হন।