কালিয়াকৈরে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ফরিদ জনপ্রিয়তায় শীর্ষে

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

0
191

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ৩নং বোয়ালী ইউনিয়নের ভোটারদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীরা পাড়া-মহল্লায়, চা-দোকানসহ বিভিন্ন স্থানে তাদের গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। ওই ইউনিয়নে একাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেও জনপ্রিয়তায় শীর্ষে রয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ফরিদ আহম্মেদ। তাই এবার নৌকার প্রার্থী হিসেবে দেখতে চান স্থানীয়রা।

এলাকাবাসী ও তার সমর্থকদের সূত্রে জানা গেছে, ফরিদ আহম্মেদ দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। বর্তমানে ৩নং বোয়ালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন বর্ষীয়ান এই নেতা। তিনি স্থানীয় কাপাসিয়াচালা গ্রামের মৃত কবি রজব আলী মাস্টারের ছেলে। তিনি সবার সুখে-দুঃখের সঙ্গি সাথী হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছেন। তাই এলাকারবাসীও তাকে এবার ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চান। একারণে সূখী সমৃদ্ধশালী আধুনিক উন্নয়নশীল মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ার প্রত্যয় নিয়ে তিনি নৌকার প্রার্থী হতে চান ফরিদ।

মাদক মুক্ত ও সন্ত্রাস মুক্ত ইউনিয়ন গড়তে সাধারণ মানুষের দোয়া ও সহযোগীতা নিয়ে এগিয়ে যেতে চান অসহায় মেহনতি মানুষের বন্ধু ফরিদ। ইতি মধ্যেই সাধারন ভোটারদের মাঝে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা, সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, আত্মীয়তার সম্পর্ক গুলো আলোচনায় উঠে এসেছে। প্রতিটি ওয়ার্ডের প্রতিটি গ্রামের সর্বত্রই ভোটারদের মুখে মূখে এখন চেয়ারম্যান প্রার্থী ফরিদের নাম। তাকে নৌকার প্রার্থী হিসেবেও দেখতে চান স্থানীয় বেশির ভাগ লোকজন।

ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী ফরিদ আহম্মেদ বলেন, আমি আওয়ামীলীগের রাজনীতি করি। নিষ্ঠার সাথে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছি। সব সময় সুখে-দুঃখে মানুষের পাশে ছিলাম, আছি এবং সারাজীবন থাকবো। এবার নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন চেয়েছি। মনোনয়ন পেলে সকলের সহযোগীতায় নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবো। আর বিজয়ী হলে। মাদক মুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত, একটি উন্নত ও আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলবো।

উল্লেখ্য, উল্লেখ, আগামী ২৮ নভেম্বর ৩য় ধাপে কালিয়াকৈর পৌরসভা ও ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২ নভেম্বর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ৪ নভেম্বর মনোনয়নপত্র বাচাই, প্রত্যাহারের শেষ দিন ১১ নভেম্বর। আগামী ১২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।