ধর্ম নিয়ে যেন কেউ বাড়াবাড়ি না করে : প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

0
135

বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে উল্লেখ করে এদেশে কাউকে ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে নিজের ছোট ভাই শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে এক সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এ সভার আয়োজন করে।

প্রধানমন্ত্রী জানান, রাসেলের মতো আর কোনও শিশুকে যাতে হত্যার শিকার হতে না হয়, সেজন্য তার সরকারের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র। এদেশে সব ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে তাদের ধর্ম পালন করবে। আমাদের সংবিধানেও তা বলা আছে। ইসলামেও সে কথাই বলা হয়েছে। মহানবী (স.) বলেছেন, ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করো না। সুতরাং আমরা চাই ধর্ম নিয়ে যেন কেউ বাড়াবাড়ি না করে। এদেশে সবাই শান্তিতে বসবাস করবে।’

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে রাজধানীর ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই সভায় অংশ নেন শেখ হাসিনা।

জনগণের মৌলিক অধিকার পূরণের পাশাপাশি গৃহহীনকে ঘর করে দেয়া সরকারের লক্ষ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, এদেশে শিশুর মেধা ও জ্ঞান যাতে যথাযথভাবে বিকশিত হওয়ার সুযোগ পায়। সে বাংলাদেশকে যেন সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। কারণ, এত রক্তক্ষয়, এত কিছু বাংলাদেশে ঘটে গেছে। কাজেই এ ধরনের ঘটনা আর যেন না ঘটে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই শেখ রাসেল ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর ধানমন্ডির ঐতিহাসিক স্মৃতি-বিজড়িত বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট মানবতার শত্রু ঘৃণ্য ঘাতকদের নির্মম বুলেট থেকে রক্ষা পাননি এ ১০ বছরের শিশু। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে নরপিশাচরা নির্মমভাবে তাকেও হত্যা করে। তিনি তখন ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন।