বঙ্গবন্ধুর দর্শন ধারণ করে শোষণমুক্ত দেশ গড়ে তুলতে হবে : স্পিকার

Shirin Sharmin Chaudhury Speaker of the Jatiya Sangsad ফাইল ছবি
DSLR Cameras/ https://amzn.to/2P4hlHWCanon EOS Rebel T7 DSLR Camera with 18-55mm Lens | Built-in Wi-Fi|24.1 MP CMOS Sensor | |DIGIC 4+ Image Processor and Full HD Videos$359.99এই ক্যামেরা টি কিন্তে এখানে কিল্ক করুন

✍ ডেস্ক রিপোর্ট
বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) কঠোর সমালোচনা করে একহাত নিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। মন্ত্রী বলেন, সিপিডি আমাদের কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করে। এটা তাদের ব্যবসা। আমাদের তথ্য-উপাত্ত ব্যবহার করেই তারা অনেক প্রোগ্রাম (অনুষ্ঠান) করে।

সোমবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সঙ্গে চলতি অর্থবছরের রাজস্ব আদায় পরিকল্পনাবিষয়ক অনলাইন বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) হিসাব বের করার দরকার নেই। এ দেশের খাল-বিল, নদী-নালা, গ্রামীণ অবস্থা- এসব দেখলেই বোঝা যায় বাংলাদেশের কী অবস্থা।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে অর্থমন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, সিপিডি কিসের ভিত্তিতে কথা বলে? তারা আন্দাজের ভিত্তিতে কথা বলে। তারা (সিপিডি) এ দেশের রাস্তাঘাট দেখে না।

বিবিএস তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে কাজ করে, আর সিপিডি করে আন্দাজে- কথাটি কি যথার্থ হল? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, যথার্থই। তবে সিপিডি সিপিডির কাজ করছে, আমরা আমাদের কাজ করছি। আমাদের হিসাব সঠিক, সারা বিশ্বই তা বিশ্বাস করছে।

প্রসঙ্গত, বিদায়ী ২০১৯-২০ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধির কথা বলছে সরকার। কিন্তু রোববার বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) জানিয়েছে, এই পরিসংখ্যানের বিশ্বাসযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ। কারণ অর্থনীতির অন্য সূচকগুলো এই পরিসংখ্যানকে সমর্থন করছে না। দেশের রাজস্ব আদায়, বিনিয়োগ, কর্মসংস্থান, জ্বালানির ব্যবহার এবং বেসরকারি খাতের ঋণপ্রবাহ গত বছরের চেয়ে কমেছে। ফলে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২ দশমিক ৫ শতাংশের কাছাকাছি। এছাড়া কীভাবে এই প্রবৃদ্ধিও হিসাব করা হয়েছে, সরকারের পক্ষ থেকে কেউ এর ব্যাখ্যা দিচ্ছে না। এ অবস্থায় প্রবৃদ্ধি করার জন্য পেছনের ডাটাগুলো প্রকাশ করতে বলেছে সংস্থাটি।

সংস্থাটি বলেছে, প্রবৃদ্ধি নিয়ে একটা মোহ সৃষ্টি হয়েছে। এর কারণ হল- প্রবৃদ্ধি রাজনৈতিকভাবেও ব্যবহার করা হয়েছে। অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি শুধু একটা সংখ্যা নয়, এর পেছনে অনেক তাৎপর্য রয়েছে। যেমন মানুষের ওপর প্রভাব, নীতিমালার ক্ষেত্রে প্রভাব। কিন্তু এখন আমরা দেখছি, এটা একটা রাজনৈতিক সংখ্যায় পরিণত হয়েছে।