সুখে থাকার সহজ একটি সূত্র

✍লেখক ছৈয়দ মোহাম্মদ মোকাররম বারী,

পৃথিবীতে সুখে থাকার খুব সহজ একটা তরিকা আছে। স্রেফ বর্তমানে থাকুন। এটা একদমই কঠিন কোন বিষয় না। সুখী হতে হলে আপনাকে অনেক কিছু করে দুনিয়া উলটে দিতে হবে না। স্রেফ বর্তমানের মাঝে আল্লাহর নিয়ামত রহমতের সাথে জীবনকে ধারণ করুন। বর্তমানকে খুব গভীরভাবে দেখুন, বর্তমানকে নিয়ে বেঁচে থাকুন, বর্তমানের মূহুর্তগুলোকে উপভোগ করুন। যেন এই বর্তমান অতীত হলে আফসোসের কারন না হয়।

অতীতের কারণে অনুশোচনা ও দুশ্চিন্তা আর ভবিষ্যত নিয়ে যত বেশি উদ্বেগ ও শংকা করবেন, আপনি তত বেশি অশান্তিতে থাকবেন। অতীত আর ভবিষ্যত নিয়ে দুশ্চিন্তা করে মূলত আপনি অন্য কারো/অন্য কিছুর কাছে নিজের স্বস্তি/শান্তি/সুখ জমা দিয়ে দিলেন।।।

যা হবার হবেই। যা হয়েছে, তা হবারই ছিলো। কিছুই পরিবর্তনের ক্ষমতা, যোগ্যতা আপনার ছিলো না, থাকবেও না। আপনি বর্তমানটুকুকে সুন্দর করুন, যেন এটুকু নিয়ে আপনার আফসোস করতে না হয়। যে কোন সুন্দর, আনন্দময়, পাপহীন, ফলদায়ক সময় আপনাকে জীবনে শক্তি ও স্বস্তি এনে দেবে। তাই বর্তমানকে গড়ুন। বর্তমানকে সুন্দর করুন। কেবল আজকের দিনটিতে সুন্দর করে বাঁচুন।

গ্রহণ করে নিন জীবনে যা ঘটেছে। গ্রহণ করে নিন এই ভেবে যে এর চেয়েও খুব খারাপ কিছু ঘটলেও আপনার কিছু করার ছিলো না। জীবনকে আপনি যতটা মেনে নিতে পারবেন, আপনি ততটাই সুখী হবেন। আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ থাকুন, জীবনকে নিয়ে আলহামদুলিল্লাহ বলে প্রশান্ত থাকুন, আনন্দিত থাকুন, নিজেকে সময় দিন। দুনিয়াতে ও আখিরাতে — উভয় স্থানেই কল্যাণের রাস্তা হবে। তাই, বর্তমানে মনোযোগ দিন, এই মূহুর্তটিতেই মন দিন।

জীবন যুদ্বে পরাজয় শিকার করে যারা আত্মহত্যা করেছে, তাদের জন্য না ঘড়ি থেমে গেছে না কেলেন্ডারের পাতা। সব আপন নিয়মেই চলতেই আছে। শুধু সে নাই। কেউ মনে ও করেনা আজ তাকে।

জীবনটা আপনার, শুধুই আপনার। এর প্রতিটি সেকেন্ডকে প্রথমে আপনাকেই মূল্যায়ন দিতে হবে। নিজেই যদি নিজেকে অবমূল্যায়ন করেন তবে মূল্যায়ন পাওয়ার আশা করাটা আকাশকুসুম।

সুখ শান্তি প্রশান্তি আপনার মনের ঘরের মাঝেই আছে, আল্লাহর রহমত নিয়ে একটু খোঁজে দেখুন ভালো করে মনের চোখ দিয়ে। এইটার সন্ধান তালাশে নয় অনুভবে মিলে।

আরও পড়ুন সময়কে একটু সময় দিন,সময় ও আপনাকে উত্তম এক সময় এনে দিবে।ভালো রাখুন ভালো থাকুন ভালোবাসা অবিরাম

✍লেখক ছৈয়দ মোহাম্মদ মোকাররম বারী,

এএনবি২৪.কম/মাহামুদুল