মালদ্বীপে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালিত

মো: নুরুল আমিন সাইফুল: মালদ্বীপে বাংলাদেশ দূতাবাস কার্যালয়ে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস পালিত হয়েছে। স্বাধীনতার শতবর্ষে জাতির পিতার সুবর্ণে স্বাধীনতা ও অভিবাসনে আনব মর্যাদা- নৈতিকতা— প্রতিপাদ্যে ৮ জানুয়ারি শনিবার রাত ৮টার দিকে দূতাবাস প্রাঙ্গণে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রবাস ও দেশের উন্নতি কামনা করে কুরআন তেলাওয়াত ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এরপর রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন মো. মিজানুর রহমান ভূঁইয়া, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন মো. আব্দুস সালাম, পরারাষ্ট্র মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন মো. ইবাদ উল্লাহ্, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন জসিম উদ্দিন।

এরপর দিবসটি উপলক্ষে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন দূতাবাসের প্রথম সচিব মো. সোহেল পারভেজ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ হাইকমিশনার রিয়ার অ্যাডমিরাল মো. নাজমুল হাসান বক্তব্যের শুরুতে স্মরণ করেন দেশের পরাধীনতার গ্লানি মোচনে প্রাণ উৎসর্গ করা বীর সন্তানদের। সেই সঙ্গে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ জাতীয় চার নেতা এবং মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা জানান।

বাংলাদেশ হাইকমিশনার প্রবাসীদের জন্য বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে বলেন, পাসপোর্ট সেবা সহজ করার প্রক্রিয়া চলছে, প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আরও দ্রুত পাসপোর্ট দেওয়া হচ্ছে; যাতে বৈধ করার প্রক্রিয়ার সুযোগ নিতে পারেন। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও দূতাবাস পাসপোর্ট বিতরণ অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশের প্রবাসীদের মেধা, শ্রম ও দক্ষতা বিশ্বে প্রশংসিত। এ ধারা অব্যাহত রাখতে আমরা সচেষ্ট আছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মালদ্বীপের সুনামধন্য ব্যাবসায়ী ও গ্লোবাল রীচ প্রা. লি.-এর  ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হওয়া সিআইপি মো. সোহেল রানা এবং এনবিএল মানি ট্রান্সফারের (মালদ্বীপ) প্রতিষ্ঠাতা লোকাল ডিরেক্টর হান্নান খান কবির। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শ্রমিক, পেশাজীবী সংগঠনের নেতা ও মালদ্বীপে কর্মরত বাংলাদেশি প্রবাসীরা।