ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত শনাক্তের নতুন রেকর্ড

ভারতে বিরামহীনভাবে বেড়ে চলেছে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘণ্টায় ভারতে লাফিয়ে বেড়েছে করোনার সংক্রমণ। একদিনে ভারতে করোনায় সংক্রামিত হয়েছে নয় হাজার ৩০৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৬০ জনের। ভারতে এ পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে গেছে দুই লাখ ১৬ হাজার ৯১৯ জনে। যার মধ্যে চিকিৎসাধীন রয়েছে এক লাখ ছয় হাজার ৭৩৭ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছে এক লাখ চার হাজার ১০৭ জন।

ভারতে মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ছয় হাজার ৭৫ জনে। দেশটির মধ্যে এখনো পর্যন্ত সর্বাধিক করোনার সংক্রামণ ঘটেছে মহারাষ্ট্র রাজ্যে। সেখানে মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৪০০ জনেরও বেশি মানুষের। এর পরই রয়েছে তামিলনাড়ু রাজ্য। সেখানে মোট আক্রান্ত শনাক্ত ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে, মারা গেছে ১৯৭ জন। করোনায় আক্রান্তের বিচারে ভারতে তৃতীয় রাজধানী দিল্লি। সেখানে আক্রান্ত প্রায় ২২ হাজার মানুষ। মারা গেছে ৫০০ জনের বেশি। চতুর্থ স্থানে রয়েছে গুজরাট এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে রাজস্থান রাজ্য।

এদিকে ভারতে করোনার থাবা পড়েছে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়েও। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রতিরক্ষা সচিব অজয় কুমার। এ ঘটনা সামনে আসার পর দিল্লির সাউথ ব্লকে রাইসিনা হিলসে প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয়ের সদর দপ্তরে কমপক্ষে ৩৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে ভারতে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চীনের একটি গবেষক দল আগেই জানিয়ে দিয়েছিল, ভারতে জুনের মাঝামাঝি সময়ে প্রতিদিন ১৫ হাজার জনের মতো মানুষ করোনায় আক্রান্ত হবে। তাদের সংখ্যাতত্ত্ব ও পরিসংখ্যানের দিকেই ক্রমে এগোচ্ছে ভারত। শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্তের বিচারে নতুন মাইলস্টোন তৈরি করল ভারত। মাত্র ১৫ দিনে ভারতে করোনা রোগী বেড়েছে প্রায় এক লাখ।

গত ১৮ মে ভারতের করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ছিল এক লাখ। যা গত ৩ জুন হয়ে গেছে দুই লাখ। ভারতে গত ৩০ জানুয়ারি সর্বপ্রথম কেরালা রাজ্যে নভেল করোনারভাইরাসের সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়।