মিজানুর রহমান আজহারীর প্রতি উপদেশ , ড. মুহাম্মদ কাফীলুদ্দীন

Add your HTML code here...

এএনবি২৪.কম ডেস্ক,

ইসলামী চিন্তাবিদ, গবেষক,ঢাকা নেছারিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ড.মুহাম্মদ কাফীলুদ্দীন সরকার সালেহী তার ফেইসবুক পেইজে মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর প্রতি উপদেশ মূলক কিছু কথা লিখেছেন তার লেখাটি আমাদের এএনবি২৪.কমের পাঠকদের জন্য ও সকল মুসলমানদের জন্য তুলে ধরা হল,

ড.সালেহী লিখেন, আচছালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ,
প্রিয় দীনদার মুসলমান ভাইয়েরা,ঈদের শুভেচ্ছা রইল। আশাকরি নিরাপদে আছেন।
বিষয় ঃ
মাওলানা মীযানুর রহমান আজহারীর প্রতি উপদেশ।

ড.সালেহী তার পেইজে লিখেন প্রিয় ভাই মীযান,আমার ঈদের ভালবাসা নিও। আশাকরি ভাল আছ।পরকথা এই যে, তোমার ভালভাবে জানা আছে যে, বাংলাদেেশর সকল মানুষ ইসলাম ধর্ম লালন করে শান্তিতে বসবাস করতে চায়,

ড.সালেহী আরো লিখেন, বাংলাদেশসহ পৃথিবীর অধিকাংশ মানুষ হানাফি মাজহাবের অনুসারী। ইসলামের বড়বড় স্কলার বলতে চার মাজহাবের ইমামগণকে বুঝায়। তুমি হানাফি মাজহাবের মাদ্রাসা দারুন্নাজাত সিদ্দীকিয়া কামিল মাদ্রাসার ছাত্র বলে নিজের পরিচয় দাও, কিন্তু আমরা লজ্জিত হই যখন তুমি ভুল ফাতাওয়া দাও।

এ যাবত কত ভুল ফাতাওয়া দিয়েছো এবং তোমার ফাতাওয়ায় কত মানুষ নেক আমল এবং সঠিক পথ ছেড়ে দিয়ে বিভ্রান্ত হয়েছে, তা কি তোমার হিসাব আছে?

ড.লিখেন, তুমি কতবার ভুল ফাতাওয়া দিয়ে জাতির কাছে মাফ চেয়েছো, তার হিসাব কি তোমার কাছে আছে? এবারে তুমি বাংলাদেশের হানাফি মাজহাব মতে ঈদুল ফিতরের নামাজের ৬ তাকবীরের হিসাব সহজ বলে আমল করতে বলার পরে, সাথে সাথে হানাফি মাজহাবের সম্পূর্ণ বিপরীতে ঘরে, বাড়ির ছাদে একাকী বা জামাতের সাথে তাকবীর দিয়ে মিশরীয় শাফেঈ মজহাবের আলেমদের মতে ঈদের সালাত আদায় করা যাবে বলে ফাতাওয়া দিয়েছো, এতে যে, ঘরে, বাসা- বাড়িতে বা ছাদে আদায়কৃত ঈদের সালাত হানাফি মাজহাব মতে সহীহ হয় নাই, এ সম্পর্কে তুমি কি বলবে?

তুমি একটি মুয়াল্লাক হাদিস উল্লেখ করেছ যা সাধারণত ” মারদূদ” বলে ধরা হয়। এ প্রসঙ্গে তোমার মুহতারাম মুফতি মীযানুর রহমান সাঈদসহ বাংলাদেশের মহামান্য আলেমদের বক্তব্য শোনা উচিত ছিল বা বলার আগে পরামর্শ করা উচিত ছিল।

অধ্যক্ষ ড.সালেহী লিখেন, আমার মনে হয় তুমি ইলমে ফিক্হ সম্ভবত পড় নাই।
তুমি ফাতাওয়া দিয়ে দেশের আলেমদের কে আর লজ্জা দিও না। ফাতাওয়া দেয়া তোমার কাজ নয়, এটা মুফতিগণের কাজ। এতে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়।

তুমি প্রতিটি মুহূর্তে সমালোচনার শিকার হচ্ছ। আমাদের কষ্ট লাগে। লকডাউনে ঘরে ঈদের সালাত আদায়কারীদের কাছে প্রকাশ্যে ভুল স্বীকার কর, অন্যথায় আলেমদের সাথে বসো,আগামীতে ফাতাওয়া না দেয়ার অনুরোধ রইল।

তোমার শুভকামনায়,
ড. মুহাম্মদ কাফীলুদ্দীন সরকার সালেহী।

এএনবি২৪/মাহামুদুল,