হারতে হারতে বাঁচল ভারত, শামির হ্যাটট্রিক

চলমান বিশ্বকাপে সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স আফগানিস্তানের। এর আগের পাঁচ মাচের একটিতেও জিতেতে পারেনি তারা। তবে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে দারুণ সুযোগ পেয়েছিল তারা। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেনি। জয়ের কাছাকাছি গিয়ে ১১ হেরে গেছে আফগানরা।

ভারতের দেওয়া ২২৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২১৩ রানে ইনিংস গুটিয়ে নেয় আফগানিস্তান।

এর আগে ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে করে ২২৪ রান। সাউথাম্পটনে ভারতের এই সংগ্রহে সর্বোচ্চ ইনিংস অধিনায়ক বিরাট কোহলির। তিনি করেন ৬৩ বলে ৬৭ রান। এ ছাড়া কেদার যাদব ৫২, কে এল রাহুল ৩০, বিজয় শঙ্কর ২৯, বিরাট কোহলি ২৮ রান করেন।

মোহাম্মদ নবি ৩৩ এবং গুলবাদিন নাইব ৫১ রানে দুটি করে উইকেট পান। এ ছাড়া রশিদ খান, রহমত শাহ ও মুজিব-উর রহমান একটি করে উইকেট পান।

এর আগে চার ম্যাচের তিনটিতে জয় পেয়েছে বিরাট কোহলির দল। বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছে আরেকটি ম্যাচ।

অন্যদিকে এ পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচের সবকটিতেই হেরে গেছে আফগানরা। বিশ্বকাপে কোনো পয়েন্ট না পাওয়া একমাত্র দল আফগানিস্তান। পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে রয়েছে গুলবাদিন নাইবের দল।

ভারতের একাদশে ভুবনেশ্বর কুমারের পরিবর্তে আনা হয়েছে মোহাম্মদ সামিকে। অন্যদিকে আফগান একাদশে এসেছে দুটি পরিবর্তন। নুর আলী জার্দান ও দৌলত জার্দানের জায়গায় এসেছেন হযরতুল্লাহ জাজাই ও আফতাব আলম।

ভারতের একাদশ : কেএল রাহুল, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, এম এস ধোনি (উইকেট রক্ষক), হার্দিক পান্ডিয়া, কেদার যাদব, কুলদীপ যাদব, মোহাম্মদ সামি, যুবেন্দ্র চাহাল ও যশপ্রীত বুমরাহ।

আফগানিস্তান একাদশ : হযরতুল্লাহ জাজাই, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাসমতউল্লাহ শহীদী, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, ইকরাম আল খিল (উইকেট রক্ষক), নাজিবুল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, আফতাব আলম ও মুজিব উর রহমান।