শপথ নিলেন বিএনপির আরো ৪ এমপি

দলীয় সিদ্ধান্তের তোয়াক্কা না করে বিএনপির আরও চার সংসদ সদস্য শপথ নিয়েছেন। ফলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাদে সবাই সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন।

সোমবার বিকাল পৌনে ৫টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংসদের হুইপ ইকবালুর রহীম। বিএনপি নেতা হারুনের সঙ্গে তার স্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা আসিফা আশরাফী পাপিয়াও ছিলেন।

শপথের আগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন তারা।

শপথ নেয়া চারজন হলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের মো. হারুনুর রশীদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া এবং বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন।

এদিকে গতকাল রাত থেকেই এই শপথের ব্যাপারে গুঞ্জন শুনা যাচ্ছিলো। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান শপথের ব্যাপারে সবুজ সঙ্কেত দিতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছিলো।

রোববার (২৮ এপ্রিল) রাতে এ নিয়ে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে নির্বাচিত কয়েকজনকে নিয়ে দলের স্থায়ী কমিটি বৈঠকও করা হয়। ওই বৈঠকে নির্বাচিতরা সংসদে যাওয়ার আগ্রহের কথা জানান।

বৈঠকে স্কাইপিতে যুক্ত থাকা দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য সোমবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত সময় চেয়েছিলেন।

দলের হাইকমান্ডের কাছে শপথের পক্ষের নেতাদের বক্তব্য হচ্ছে, শপথ নিলে যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ত্রুটিমুক্ত হয়ে যাবে এমন নয়। কারণ নির্বাচনটা কী হয়েছে তা দেশ বিদেশে সবার কাছে স্পষ্ট। শপথ নিয়ে সংসদে গেলে সেখানে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমন পীড়নের কথা তুলে ধরা যাবে।
উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসনে জয়লাভ করে। এর মধ্যে ছয়জন বিএনপির; বাকি দু’জন ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরামের। নির্বাচনের পরপরই ভোটে ব্যাপক অনিয়ম এবং কারচুপির অভিযোগ তুলে তা প্রত্যাখ্যান করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানানোর পাশাপাশি তারা শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

তবে এ সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে গণফোরামের দুই সংসদ সদস্যের মধ্যে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচিত সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহম্মেদ গত ৭ মার্চ শপথ নিয়ে সংসদে যোগ দেন। তাকে অনুসরণ করে গণফোরামের প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত দলটির আরেক নেতা মোকাব্বির খান গত ২ এপ্রিল শপথ নেন।