ভুয়া সংবাদ প্রচার বন্ধে কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী

ভুয়া সংবাদ প্রচার বন্ধে কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বলেন, ‘ভুয়া সংবাদ প্রচারে জড়িতদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। তাদের অর্থের উৎস খুঁজে বের করা উচিত। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াগুলোকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।

শনিবার রাজধানীতে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী একথা বলেন।

ভুয়া সংবাদ বিশ্বব্যাপী সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। ভুয়া সংবাদ ছড়ানোর ক্ষেত্রে সবচেয়ে প্রচলিত বিষয় হচ্ছে মিথ্যা রাজনৈতিক সংবাদ। এছাড়াও ব্যবসায়, সন্ত্রাস, বিজ্ঞান, বিনোদন আর প্রাকৃতিক দুর্যোগ নিয়েও ভুয়া সংবাদ প্রচার করা হয়। এতে জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়ার পাশাপাশি বড় ধরণের বিশৃঙ্খলা তৈরিরও সম্ভাবনা দেখা দেয়। ভুয়া সংবাদ ঠেকাতে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ এরইমধ্যে আইন প্রণয়নও করেছে।

ভুয়া সংবাদ প্রচার বন্ধে মূল ধারার গণমাধ্যমের ভূমিকার ওপরও জোর দিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ভুয়া সংবাদ প্রতিরোধে আইন-নীতিমালা প্রণয়নের কাজ চলছে। সরকারের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোও এব্যাপারে তৎপর।’

‘ভুয়া সংবাদের প্রকাশ ও প্রচার বন্ধে বিটিআরসি, আইসিটি বিভাগ, পুলিশ ডিপার্টমেন্ট ও সরকারের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো কাজ করছে। তবে সরকারের পাশাপাশি মূলধারার সংবাদমাধ্যমগুলোরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।’

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়াগুলোকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে। আর যারা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভুয়া সংবাদ তৈরি করে প্রচার করছে তাদের চিহ্নিত করে শাস্তির আওতায় আনতে হবে। তাদের অর্থের উৎস খুঁজে বের করতে হবে।’