সময়মতো আদালতে উঠবেন, সময়মতো নামবেন: প্রধান বিচারপতি

বিচারকদের উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, সময়মতো আদালতে উঠবেন, আর সময়মতো নামবেন। সময় শেষ হওয়ার আগে কোর্ট থেকে নামবেন না। দুপুরে খাবার খেয়ে আবারও কোর্টে বসবেন এবং বিকালবেলা ঠিক নির্দিষ্ট সময়ের পর কোর্ট থেকে নামবেন। ২টার পর আদালত যদি বন্ধ হয়ে যায় তবে লাখ লাখ মামলা স্তূপের জট কোনোদিনই মুক্ত হবে না।

বিচারকদের তিনি বলেন, আদালতের পুরো সময়টাকে সদ্ব্যবহার করতে হবে।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে কুষ্টিয়া আদালত চত্বরে নবনির্মিত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বহুতল ভবন উদ্বোধনকালে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় ওই ভবনের আরেকজন উদ্বোধক আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সব প্রতিবন্ধকতা আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে সরিয়ে বঙ্গবন্ধু হত্যার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের এবং সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি তারেক রহমানকেও ইনশাআল্লাহ দেশে আনবই।

এদিকে উদ্বোধনী আলোচনা সভার বিশেষ অতিথি আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, স্থানীয় আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ সাংবাদিকদের বলেছেন, ইস্যু না পেয়ে বিএনপি নেতারা এখন বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছে।

হানিফ বলেন, কারাবিধি অনুযায়ী একজন দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদি হিসেবে বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু বিএনপি নেতারা এই বিষয়টি নিয়ে মিথ্যাচার করছে। বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করতে হলে বিএনপিকে আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই চেষ্টা করতে হবে।

এর আগে ফিতা কেটে এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে কুষ্টিয়া চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বহুতল ভবন উদ্বোধন করেন অতিথিরা। এ সময় সেখানে দুটি গাছের চারা রোপণ করেন প্রধান বিচারপতি। পরে আলোচনায় অংশ নেন তারা।

এ সময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী, আবু বকর সিদ্দিকী ও আবু জাফর সিদ্দিকী।

এছাড়াও কুষ্টিয়ার স্থানীয় আসনের এমপিরা উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ অরূপ কুমার গোস্বামী। এ সময় কুষ্টিয়া আদালতের বিজ্ঞ বিচারকরা, আইনজীবীরা ও জনপ্রতিনিধি, সুধীজনরা উপস্থিত ছিলেন।