মালয়েশিয়ায় অভিযানে বাংলাদেশিসহ আটক ৩০৯

maloyshia news

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেপ্তারে ব্যাপক অভিযান চালিয়েছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। এরই মধ্যে এ অভিযানে বাংলাদেশিসহ মোট ৩০৯ জনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে কিছু বৈধ অভিবাসীও রয়েছে।

গতকাল বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুরের পুডু বাস টার্মিনাল ও কোতারায় মাইডিন মার্কেটের আশপাশে ব্যাপক তল্লাশি চালিয়ে ওই অভিবাসীদের গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ বিভাগ জানায়, আটক ব্যক্তিদের মধ্যে বাংলাদেশ ছাড়াও ইন্দোনেশিয়া, ভারত, পাকিস্তান ও ভিয়েতনামের নাগরিক রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ২৯০ জন পুরুষ ও ১৯ নারী। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আটক বাংলাদেশিদের নির্দিষ্ট সংখ্যা জানা যায়নি।

অভিবাসন বিভাগের ১৭৫ জনের একটি টিম ও পুলিশের যৌথ অভিযানে গোটা এলাকা ফাঁকা হয়ে যায়। সে সময় অনেক বৈধ অভিবাসীও দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন। অন্যদিকে, উৎসুক অনেকে অভিযান পরিচালনা প্রত্যক্ষ করতে এসেও গ্রেপ্তার হন বলে জানা যায়।

কুয়ালালামপুরের পুলিশপ্রধান দাতুক সেরি মাজলান লাজিম সাংবাদিকদের জানান, আটক ব্যক্তিদের যাচাই-বাছাইয়ের জন্য জিজ্ঞাং, দ্যাং ওয়ানগি থানা (বালাই) ও চেরাচ ইমিগ্রেশন অফিসে নেওয়া হয়েছে। সবার ভ্রমণ দলিল, পাসপোর্ট, ওয়ার্ক পারমিট কিংবা কারো বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি মামলা আছে কি-না, সেসব খতিয়ে দেখা হবে।

প্রতিদিনই দেশটিতে থাকা অবৈধ শত শত কর্মীকে আটক করছে পুলিশ। কুয়ালালামপুর শহরকে অপরাধমুক্ত করতেই এ অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা বারনামা অভিবাসন বিভাগের বরাত দিয়ে জানায়, ২০১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ২৯ জুন পর্যন্ত সাত লাখ ৪৮ হাজার ৮৯২ কর্মী ও ৮৩ হাজার ৯১৯ জন নিয়োগদাতা অভিবাসন-সংক্রান্ত বৈধকরণ প্রকল্পে নিবন্ধিত হয়। এর মধ্যে এক লাখ ২০ হাজার ৩৩২ জনকে বৈধতার অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।

অন্যদিকে যে তিনটি ভেন্ডর কোম্পানিকে অভিবাসন-সংক্রান্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়, তাদের নাম ভাঙিয়ে বেশ কিছু নকল এজেন্ট বাংলাদেশিসহ অনেকের কাছ থেকেই টাকা নিয়ে পরবর্তী সময়ে প্রতারণা করে।