মালদ্বীপে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

 মোহাম্মদ মাহামুদুল হাসান কালাম, মালদ্বীপ থেকে:  মালদ্বীপের রাজধানী মালে’তে নানা আয়োজনে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন রা হয়েছে। মালদ্বীপে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের আয়োজনে দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে (২১শে ফেব্রুয়ারী রোজ বৃহস্পতিবার ২০১৯ তারিখে ২০.০০ ঘটিকায় রাজধানী মালেস্থ STELCO অডিটরিয়াম রুমে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রদূত রিয়ার অ্যাডমিরাল আখতার হাবীব। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত এবং দেশের সার্বিক কল্যাণে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পড়ে শোনান দূতাবাসের প্রথম শ্রম সচিব টি. কে. এম. মোশফেকুর রহমান ও দূতালয় প্রধান মোহাম্মাদ হারুন-অর-রশীদ। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল পুরস্কার প্রদান পর্ব, মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি দূতাবাসে অনুষ্ঠিত শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কণ ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার দেন রাষ্ট্রদূত। উল্লেখ গত ১৬ই ফেব্রুয়ারী ২০১৯ তারিখ সকাল ১১.০০ ঘটিকায় মালদ্বীপে অবস্থিত বাংলাদেশী শিশু কিশোরদের জন্য এক চিত্রাঙ্কন এবং কবিতা আবৃতি প্রতিযোগিতা-এর আয়োজন করে। উক্ত প্রতিযোগিতায় ম্যাডাম তনুজা হাবীব প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্যযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থিতিতে শিশু কিশোররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে দূতাবাসের অফিসার, স্টাফ এবং স্থানীয় নীল-দরিয়া শিল্পী গোষ্ঠীর অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সকলের অংশগ্রহণে জাতীয় সঙ্গীত ও নৈশভোজ পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। প্রধান অতিথি, রাষ্ট্রদূত রিয়ার অ্যাডমিরাল আখতার হাবীব সমাপনী বক্তব্য দেন তিনি তার বক্তব্যে বলেন , প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে ভাষা আন্দোলন, দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে মাতৃভাষার চর্চা ও বাঙালি সংস্কৃতির বিকাশে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান