যথাযোগ্য মর্যাদায় ইরাকে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

২১ ফেব্রুয়ারি  বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিত করণের মধ্য দিয়ে মহান শহিদ দিবস ও  আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠান শুরু করা হয় । শহিদ বেদিতে পুস্পস্তাবক অর্পণ করেন বাংলাদেশের নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আবু মাকসুদ এম ফরহাদ, দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারিগণ ও তাদের পরিবারের সদস্যরা, কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, ইরাক ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকসহ উপস্থিত ইরাকস্থ প্রবাসিরা ।  আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমি কি ভূলিতে পারি –  গানটি সমবেতকন্ঠে উপস্থিত সকলে পরিবেশন করেন । রাষ্ট্রদূত আবু মাকসুদ মোঃ ফরহাদ এর সভাপতিত্বে ও দূতালয় প্রধান মোঃ অহিদুজ্জামান লিটনের সঞ্চালনায় ভাষা শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন ও তাঁদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। । অনুষ্ঠানে শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে রাষ্ট্রদূত ফরহাদ, কাউন্সিলর (শ্রম) রেজাউল কবির, দূতালয় প্রধান অহিদুজ্জামান লিটন ও আবু সালেহ মোঃ ইমরান, দ্বিতীয় সচিব (শ্রম) । অনুষ্ঠানে শহিদ দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বাংলাদেশ কমিউনিটির পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন মোঃ ইয়াসিন । বিশেষ আলোচক হিসেবে রাষ্ট্রদূত পত্নি মিসেস মেহবুবা খান ফরহাদ আলোচনায় অংশ নেন । সমাপনি বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত একুশের চেতনায় উজ্জ্বীবিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ায় ও বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমুর্তি উজ্জ্বল করায় প্রবাসি বাংলাদেশীদের প্রতি আহবান জানান। শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা এবং দূতাবাস পরিবারের সদস্য, প্রবাসী বাংলাদেশী ও ইরাকের ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।