কঙ্গোর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ফেলিক্স শিসেকেদিকে জয়ী ঘোষণা

(FILES) In this file photo taken on December 21, 2018 Democratic Republic of Congo's Union for Democracy and Social Progress (Union pour la Democratie et le Progres Social - UDPS) party leader and presidential candidate Felix Tshisekedi waves to the crowd during a campaign rally in Kinshasa, in the courtyard of the party's headquarter. - The declared outcome of presidential elections in the Democratic Republic of Congo is "not consistent" with the actual results, France's Foreign Minister said on January 10, 2019, suggesting opposition leader Martin Fayulu should have won instead. Main opposition leader Felix Tshisekedi was on January 10 named the provisional winner in Kinshasa after a delayed count. (Photo by Luis TATO / AFP)

কঙ্গোয় গত মাসের শেষ সপ্তাহে হওয়া প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অভাবনীয় জয় পেয়েছেন দেশটির বিরোধী দলের নেতা ফেলিক্স শিসেকেদি। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মার্টিন ফায়ুলুকে সামান্য ব্যবধানে পরাজিত করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ভোট গণনা শেষে দেশটির নির্বাচন কমিশনের প্রধান কর্নেলি নাঙ্গা ইউনিয়ন ফর ডেমোক্রেসি অ্যান্ড সোশ্যাল প্রোগ্রেস পার্টির নেতা শিসেকেদিকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

এক কোটি ৮০ লাখ ভোটারের মধ্যে ৩৮ দশমিক ৫৭ শতাংশের সমর্থন পেয়েছেন ফেলিক্স শিসেকেদি। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফায়ুলু পেয়েছেন প্রায় ৬৪ লাখ ভোট।

বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলা সমর্থিত ইমানুয়েল শ্যাডারি হয়েছেন তৃতীয়। তিনি পেয়েছেন মাত্র ৪৪ লাখ ভোটারের সমর্থন।

রয়টার্স জানিয়েছে, সাংবিধানিক আদালত নির্বাচন কমিশনের এ ফল মেনে নিলে কঙ্গোতে প্রথমবারের মতো গণতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের দৃশ্য দেখা যাবে।

সংবিধানের কারণে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলা এবারের নির্বাচনে অংশ নিতে পারেননি। ভোটের ফলকে ঘিরে সম্ভাব্য সহিংসতা মোকাবেলায় কঙ্গোজুড়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনীও মোতায়েন করা হয়েছে।