নোয়াখালীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীতে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে পালিয়েছে ধর্ষকরা। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার বেগমগঞ্জ থানার চৌমুহনী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের মধ্যম নাজির পুর গ্রামের দুধ মিয়া বেগ বাড়িতে সকাল ৮টায়। থানা পুলিশ বিকেলে তার লাশ  উদ্ধার করে সুরুতহাল লিপিবদ্ধের পর নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। উপ-পরিদর্শক শহিদ উল্যা জানান, জামাল বেগ বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে। প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হই, অপমান সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে ভিকটিম। এলাকাবাসী জানায়, আজিজিয়া ইসলামিয়া দাখিল মহিলা মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী বিবি সাজেদা (১৪) কে স্থানীয় বখাটে মধ্য নাজিরপুর গ্রামের লাল মিয়া বেগ বাড়ির আলী আহম্মদ হোরার পুত্র নিশান (৩৩) এক সন্তানের জনক ঘরে তাকে একা পেয়ে মামুন ও ফারুকের সহযোগিতায় তাকে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। হতভাগ্য ছাত্রী এক চিরকুটে জানায়, আমার মৃত্যুর জন্য দায়ী নিশা। আমার জীবনটাকে সে তছনছ করে দিয়েছে।

আমার মা-বাবা ও ভাইদের আশার উপর হাত দিয়েছে তাই নির্যাতন না সহ্য করতে পেরে আমি আত্মহত্যা করলাম। সবাইকে বলিও আমি কাউকে কিছু বলে থাকলে ক্ষমা করে দিতে। আমার মাকে বলো আমার জন্য দোয়া করতে। আল্লাহ তুমি আমাকে ক্ষমা করে দিও। ভিকটিমের মা রৌশন আরা বেগম জানায়, ধর্ষকদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। বেগমগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ফিরোজ আলম মোল্লা জানায়, বাদী পক্ষ ধর্ষণ ও মার্ডার মামলা দিলে আমরা নথিভুক্ত করব।